শনিবার থেকে সিলেটে শুরু হচ্ছে ভূমিসেবা সপ্তাহ

সিলেট ডায়রি ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২৪, ১১:৪০ অপরাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে

‘স্মার্ট ভূমিসেবা, স্মার্ট নাগরিক’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সিলেটে আগামী ৮-১৪ জুন সপ্তাহব্যাপী ‘ভূমিসেবা সপ্তাহ-২০২৪’ উদযাপিত হবে।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) বিকেল ৪টায় সিলেট সার্কিট হাউজে বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দিকী।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সালে উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করেছেন এবং এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের নিমিত্ত সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। স্মার্ট বাংলাদেশের চারটি স্তম্ভ হলো- স্মার্ট সিটিজেন, স্মার্ট সোসাইটি, স্মার্ট ইকোনমি এবং স্মার্ট গভর্নেন্স। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে স্মার্ট ভূমি ব্যবস্থাপনা একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ। স্মার্ট ভূমি ব্যবস্থাপনা এবং ভূমি পরিষেবার ক্ষেত্রে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, ই-মিউটেশন, অনলাইন ভূমি উন্নয়ন কর আদায় সিস্টেম, ডিজিটাল রেকর্ডরুম, ডাকযোগে খতিয়ান ও পচাঁ প্রাপ্তি, ডিজিটাল সার্ভেয়িং এবং ম্যাপিং, অনলাইন জলমহাল ইজারা, ল্যান্ড জোনিং, অনলাইন শুনানী সিস্টেম, হটলাইন সেবা (১৬১২২) প্রবর্তনের মাধ্যমে ভূমি মন্ত্রণালয় প্রচলিত ভূমিব্যবস্থাপনাকে স্মার্ট ভূমি ব্যবস্থাপনায় রূপান্তরের একটি যুগান্তকারী পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। যা স্মার্ট বাংলাদেশের চারটি স্তম্ভ বিনির্মাণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

লিখিত বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, ভূমি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ইতোমধ্যে সারাদেশে চালু করা হয়েছে ই. মিউটেশন, অনলাইন ভূমি উন্নয়ন কর আদায় সিস্টেম, ডিজিটাল রেকর্ডরুম, ডাকযোগে পচা প্রাপ্তি ইত্যাদি। এর ফলে সাধারণ নাগরিকগণ ভূমি অফিসে না এসেও অনলাইনে বিশ্বের যেকোন প্রান্ত থেকে নামজারীর আবেদন, নামজারীকৃত খতিয়ান, পর্চার সার্টিফাইড কলি, মৌজা ম্যাপের আবেদন, ভূমি উন্নয়ন কর এর ডিসিআর কপি সংগ্রহ করতে পারছে এবং পরিশোধ করতে পারছে ভূমি উন্নয়ন কর। এছাড়াও ঘরে বসেই ডাকযোগে নাগরিকগণ পচাঁর অনুলিপি গ্রহণ করতে পারছে। ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে প্রবর্তিত টোল ফ্রি নম্বর ১৬১২২ -এ কল করে যেকোনো ভূমি সংক্রান্ত তথ্য পেয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন ইতোমধ্যে নাগরিকদেরকে তুমি তথ্য জ্ঞানে সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে ভূমি মন্ত্রণালয় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন পোর্টাল চালু করেছে। যার মাধ্যমে নাগরিকগণ ভূমি সংক্রান্ত সকল ধরনের আইনী তথ্য ও পরামর্শ পেতে সক্ষম হবেন। সমগ্রদেশে শহর ও ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ প্রকল্প-এর আওতায় ১ম পর্বে ১০৪৩টি আধুনিক ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবন নির্মাণ করা হয়েছে এবং ২য় পর্বে আরও ১৩৩৩টি ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবনের নির্মাণ কার্যক্রম চলমান আছে। এরই প্রেক্ষিতে সিলেট জেলায় ৩৩টি ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ করা হয়েছে।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী গত বছরের ২৯ মার্চ জাতীয় ভূমি সম্মেলনে ই-রেজিস্ট্রেশন ও ডিজিটাল ভূমিসেবা সিস্টেমের আন্তঃসংযোগ, স্মার্ট ভূমি নকশা, স্মার্ট ভূমি মিডিয়া, স্মার্ট ভূমি রেকর্ড ও স্মার্ট ভূমিসেবা কেন্দ্রের শুভ উদ্ধোধন ঘোষণা করেছেন। ভূমি মন্ত্রণালয়ের এসকল স্মার্ট উদ্যোগসমূহের মাধ্যমে ভূমি ব্যবস্থাপনার আমূল পরিবর্তন হয়েছে এবং ভূমিসেবায় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হয়েছে, দুর্নীতি হ্রাস পেয়েছে।

এসময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিলেটের জেলা প্রশাসক শেখ রাসেল হাসান।

ভূমিসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে-৮জুন সকাল ১০ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। ১০ জুন সকাল ১১ টায় সিলেটের জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জনসচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হবে। জেলা প্রশাসকের কার্যালয় এবং সকল উপজেলা ভূমি অফিসসমূহে সেবা বুথ স্থাপন করা হবে। ভূমিসেবা বিষয়ে একটি সহজপাঠ্য ও স্বয়ংসম্পূর্ণ বুকলেট ‘ভূমি আমার ঠিকানা’ সর্বস্তরের নাগরিকের নিকট গৌঁছে দেওয়া হবে। ভূমিসেবা সপ্তাহ ২০১৪ উদযাপন উপলক্ষ্যে উপজেলা/ইউনিয়ন ভিত্তিক স্কুল/কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভূমি বিষয়ক কুইজ, বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি