কোম্পানীগঞ্জে ২ গৃহবধূর মৃত্যু

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ১ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০৮ অপরাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে টুকেরগাঁও ও বুড়িডহর দক্ষিণ কাঠালবাড়ী গ্রামে পৃথক ২ ঘটনায় ২ গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাত ১১টায় লুৎফা বেগম (৩০) ও সোমবার ভোরে রুবিনা বেগম (২৭) নামের ঐ দুই গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।

নিহত লুৎফা বেগম উপজেলার বাঘারপাড় গ্রামের মৃত আব্দুল হেকিমের মেয়ে। তবে নিহত লুৎফার স্বজনরা জানিয়েছেন স্বামীর সাথে বিরোধের জেরে তার মৃত্যু হয়েছে।

অন্য দিকে বিষপানে রুবিনা বেগম (২৭) নামের আরেক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। ঘটনার পর থেকেই নিহতের স্বামী জুবের আহমদ পলাতক রয়েছে। টুকেরগাঁও গ্রামের আবুল হোসেনের বাসার ভাড়াটিয়া থাকতেন রুবিনা বেগম ও তার স্বামী।

জানা যায়, বুড়িডহর গ্রামের রুবেল মিয়ার সাথে তার স্ত্রী লুৎফা বেগমের ২ দিন থেকে ঝগড়া চলছিল। এ নিয়ে সালিস বিচারও হয়েছে। রোববার দিনে এলাকার কয়েকজন মুরব্বিরুবেল মিয়ার বাড়িতে আসেন তাদের বিবাদ মেটানোর জন্য। কিন্তু তারা এসে রুবেলকে বাড়িতে পাননি। রাতে রুবেল বাড়িতে আসেন। পুলিশ জানিয়েছে, রুবেল তাদেরকে বলেছে সন্ধ্যায় তার স্ত্রী লুৎফা বেগম ২টি মরিচ খেয়ে ফেলে। ফলে তার পেটে ব্যথা শুরু হয়। সাথে সাথে তাকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১১টায় মৃত্যু হয়।

রোববার দিবাগত রাত ১২টায় ঘরের দরজা বন্ধ করে শুতে যান রুবিনা। পরদিন সোমবার সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ঘরের দরজা না খোলায় আশপাশের ভাড়াটিয়ারা ডাকাডাকি করতে থাকেন। কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে অন্য ঘর দিয়ে তাঁর রুমে প্রবেশ করে মাটিতে পরে থাকতে দেখেন রুবিনকে। পরে তারা উদ্ধার করে দ্রুত কোম্পানীগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে যান। সকাল ৯টায় কোম্পানীগঞ্জ হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত্যু ঘোষণা করে।

নিহত রুবিনা বেগম গোয়াইনঘাট উপজেলার রাউত গ্রামের আব্দুস সালামের মেয়ে। তার স্বামী একই উপজেলার লাবু গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি গোলাম দস্তগীর আহমদ জানান, নিহত রুবিনার পরিবারকে খবর দিয়ে গোয়াইনঘাট থেকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। নিহতের স্বামীকে আটক করতে চেষ্টা চলছে। এবং লুৎফার লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি