মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে ফুটন্ত সূর্যমুখী ফুল

শাহ্ মাশুক নাঈম, দোয়ারাবাজার;
  • প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২৩, ৭:১৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ বছর আগে

মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে ফুটন্ত সূর্যমুখী ফুল। এ ফুল দেখতে কিছুটা সূর্যেরই মতো, তাই এ ফুলের নাম রাখা হয়েছে সূর্যমুখী। সূর্য যে দিকে হেলে পড়ে, ঠিক সূর্য্যের দিকেই তাকিয়ে থাকে সূর্যমুখী ফুল। তাই সূর্যমুখীর হাসিতে নজর কেড়েছে ফুল প্রেমিদের। তাই সূর্যমুখী ফুলের বাগানে নিজেদের ছবি ক্যামেরা বন্ধি করতে নানা বয়সী মানুষ প্রতিদিন ভিড় করছেন। সূর্যের আলোতে সূর্যমুখী ফুলগুলো সৌন্দর্য ছড়িয়ে পথচারীদের অভিভূত করছে।

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের মহব্বতপুর বাজারের পশ্চিম নিয়ে দক্ষিণে নজরে পড়ে। হলুদ ফুল সূর্যমুখীর একটি বাগান।

খোজ নিয়ো যানা যায়, ১৫ শত টায়গায় সূর্য্যমুখী চাষ করেছেন টিলাগাঁও গ্রামের মৃত্যু জমসেদ আলীর ছেলে সংগ্রাম আলী। সংগ্রাম আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি, সিলেট ডায়রীকে বলেন, আমি একজন কৃষক প্রতিবছর বিভিন্ন ধরণের সবজির চাষ করি। এবার সবজির পাশাপাশি সূর্যমুখী ফুলের চাষ করলাম। এক কেজি সূর্যমুখীর বীজ কিনে এনেছিলাম চাষ করবো? কিন্তুু জায়গার সল্পতার জন্য ৫০০ গ্রাম বীজ চাষ করলাম। এখন দেখা যাচ্ছে খুবই ভাল ফলন হয়েছে। যে হারে সূর্যমুখী ফুল ফুটেছে মনে হচ্ছে অনেক তেল সংগ্রহ করা যাবে।

সংগ্রাম আলী আরও বলেন, সখের বসে সূর্যমুখী চাষ করলাম এখন বাম্পার লাভের আশা করা যাচ্ছে। আমার কাছে বেশি আনন্দ লাগে।দর্শনার্থীরা যখন সূর্যমুখী ফুল দেখতে সকাল-বিকাল বাগানে ছবি তোলতে ভীর করে।

তিনি আরও বলেন, যদি আমাদের মতো কৃষকদের বিনামূল্যে সূর্যমুখীর বীজ, সার ও আন্ত-পরিচর্যার জন্য উপকরণ ও অর্থ সহায়তা করে কৃষি বিভাগ তখন সূর্যমুখী চাষের ফলে অনেকের আয় ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। সূর্যমূখীর বীজ উৎপাদন ও ফুলের বীজ বিক্রি করে কৃষকের মুখে হাসি ফুটবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

স্হায়ী দর্শনার্থীরা বলেন, এতো সুন্দর দৃশ্য আগে কখনো দেখা যায়নী। সূর্যমুখী ফুলের বাগান এ এলাকায় এই প্রথম দেখলাম।সূর্যমুখী বাগান দেখতে অনেক ছেলে-মেয়ে প্রতিদিন ছুটে আসে। বিকেলে খুব বেশি ভীড় হয়। এতে আমরা এলাকাবাসী আনন্দিত।

দোয়ারাবাজার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শেখ মুহাম্মদ মহসিন সিলেট ডায়রিকে বলেন, এই এলাকার মাটিতে সূর্যমুখী ফুল বাণিজ্যিকভাবে চাষ হতে পারে। অনেক কৃষক সূর্যমুখী চাষে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এবার কৃষি মৌসুমে আমরা সরকারি ভাবে অনেক কৃষককে সূর্যমুখীর বীজ দিয়ে সহযোগীতা করেছি। যারা কৃষির প্রতি আগ্রহ রয়েছেন তাদের পাশে কৃষি বিভাগ সর্বদাই থাকবে। তিনি আরও বলেন, সূর্যমুখী বীজের তেল স্বাস্থ্যর জন্য ভালো। অন্যান্য তেলবীজে যেসব ক্ষতিকারক উপাদান (বিশেষ করে কোলেস্টেরল) থাকে সূর্যমুখীতে তা নেই। বরং আরও উপকারী উপাদান ও পুষ্টিগুণে বিদ্যমান। সুস্বাস্থ্যের জন্য সূর্যমুখীর তেলের বিকল্প নেই।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি