ওয়াজ মাহফিলের তারিখ নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারি ২০২৪, ৯:৩৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৪ সপ্তাহ আগে

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে সভার তারিখকে কেন্দ্র করে আহত হওয়া ১০ জনের মধ্যে ছমির মিয়া নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি সিলেট ওসমানী হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। রোববার (২৮ জানুয়ারি) বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

জানা যায়, রানীগঞ্জ ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের ওয়াজ মাহফিলের আলোচনার মধ্যে একপর্যায়ে তারিখ নির্ধারণ নিয়ে মসজিদের মুতায়াল্লি হান্নান মিয়া ও গ্রামের মুরুব্বি মুক্তার মিয়ার মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়েছিল। পরে উভয়পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে গ্রামের খেলার মাঠে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয়পক্ষের প্রায় ২০ জন আহত হয়। এরমধ্যে আহত তিনজনকে জগন্নাথপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তাদের সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন নোয়াগাঁও গ্রামের ছমির মিয়া (৭০) মৃত্যুবরণ করেন।

মুক্তার মিয়ার পক্ষের লোকজন জানান, শুক্রবার মারামারির সময় ছমির মিয়া সামনে ছিলেন। সে সময় তিনি গুরুতর আহত হন। আমরা গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে জগন্নাথপুর উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে, সেখানে থাকা ডাক্তাররা আমাদের সিলেট ওসমানী হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বিকেলে মৃত্যুবরণ করেন।

এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর থানার এসআই ও রানীগঞ্জ বিট অফিসার অলক দাশ জানান, সভার তারিখকে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনায় আমরা পাঁচজনকে আটক করে সুনামগঞ্জ কোর্টে পাঠিয়েছিলাম। সেখানে তারা বিষয়টি শেষ করবে বলে জামিনে চলে আসে।

জগন্নাথপুর থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম জানান, নোয়াগাঁও গ্রামে একজন মারা গেছে শুনেছি। আমি শুনেছি শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন। এ ব্যাপারে এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি