আমেরিকা আমাদের শাস্তি দিতে পারবে না: পরিকল্পনামন্ত্রী

শান্তিগঞ্জ প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২৩, ৬:৩৮ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ বছর আগে

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে ভিসা দিবে কি-না এটা তাদের বিষয়। তারা যদি আমাদের ভিসা না দেয় তাহলে আমাদের কী করার আছে? এটা কোনো ভয় বা সংশয়ের বিষয় নয়। প্রতিটা রাষ্ট্রই সার্বভৌম ও তার অবস্থান থেকে স্বাধীন। তাদের নিজ নিজ সংবিধান আছে। বাংলাদেশও স্বাধীন একটা দেশ৷ আমরা আমাদের স্বার্থের দিক বিবেচনায় রেখে কাজ করবো। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে আমাদের কোনো মুখোমুখি বিবাদ নেই। তাদের কাজ তারা করবে, আমরা আমাদের মতো কাজ করে যাবো। সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে কেউ বাঁধা দিলে আমেরিকা কেন, আমরাই দেশের প্রচলিত আইনে তাকে শাস্তি দেবো। আমেরিকা তো আমাদের শাস্তি দিতে পারবে না।

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় শান্তিগঞ্জ উপজেলার এফআইভিডিবির সভা কক্ষে সুনামগঞ্জের হাওর এলাকার সমন্বিত পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনার নিমিত্ত সম্ভাব্যতা সমীক্ষা শীর্ষক প্রকল্পের উপর মতবিনিময় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য হিসেবে পেঁয়াজ খুবই প্রয়োজন। এর দাম বাড়ছে। এটা দুঃখজনক। আর পিঁয়াজের দাম বাড়তে দেওয়া যাবে না। পিঁয়াজের সিন্ডিকেট থাকলে তা খতিয়ে দেখবো। সাধারণ ভোক্তাদেরকেও সঞ্চয়ী হতে হবে।

মন্ত্রী মান্নান বলেন, দেশ আইন ও সংবিধানের নিয়মে চলে, নির্বাচনকে বাঁধাগ্রস্থ করা এটা গণতন্ত্রের কাজ নয়। সুনামগঞ্জের মানুষ দীর্ঘদিন অবহেলিত ছিল। বর্তমানে শেখ হাসিনার সরকার সুনামগঞ্জে হাওর পাড়ের মানুষের জীবন যাত্রার মান উন্নত করেছেন। আগামী দিনেও শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়ন কাজ চলমান থাকবে। আসন্ন নির্বাচনেও উন্নয়ন কাজ থেমে থাকবে না। দেশের সকল নির্মাণ প্রকল্পে কাজ চলমান রাখা হবে। তবে নির্বাচনকে সামনে রেখে নতুন কোন প্রকল্প নেওয়া হবে না। ইতোমধ্যে সুনামগঞ্জে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও সুনামগঞ্জ টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ও নির্মাণ কাজ শুরু হবে। আগামীতে সুনামগঞ্জবাসীর জন্য হাওরের দুর্গম এলাকায় উড়াল সেতু নির্মাণ করা হবে। যাতে বর্ষা-হেমন্তে নির্বিঘ্নে মানুষ চলাচল করতে পারেন। এটাও শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বাস্তাবায়ন করা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, সুনামগঞ্জের ফসল রক্ষা বাঁধ, স্থায়ী নদী খনন ও সমন্বিত পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে নতুন প্রকল্পে তৈরী করে বাস্তবায়ন করা হলে সুনামগঞ্জবাসী উপকৃত হবেন। বর্তমান সরকার হাজার কোটি টাকার প্রকল্পও বাস্তবায়ন করেছে। আর সুনামগঞ্জবাসীর জন্য তিন-চার হাজার কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা কোন সমস্যা হবেন না। প্রকল্পটি ভালোভাবে গ্রহণ করেন। যাতে সুনামগঞ্জবাসীর উপকারে আসে।

জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে মতবিনিময় কর্মশালায় অন্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড পূর্ব রিজিয়নের মহাপরিচালক এসএম শহিদুল ইসলাম, সিলেট উত্তর পূর্বাঞ্চলের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী খুশি মোহন সরকার, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী (পরিকল্পনা-১) মুহাম্মদ আব্দুর রাকিব, সুনামগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বিমল চন্দ্র সো, হাওর বাঁচাও আন্দোলনের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সুফিয়ান, মুক্তিযুদ্ধা আমজাদ হোসেন প্রমূখ।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি