শ্রীমঙ্গলে হোটেলে পাওয়া অজ্ঞাত লাশের পরিচয় শনাক্ত

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ৮:২৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৩ মাস আগে

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল পৌরসভার নতুন বাজার এলাকায় মুন আবাসিক হোটেলে গত ৪ ডিসেম্বর পাওয়া অজ্ঞাত অর্ধগলিত লাশের পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সুজন মিয়া নামের একজনে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ বাস স্ট্যান্ড এলাকা থেকে সুজন মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি মৌলভীবাজার জেলার সদর উপজেলার বর্ষিজোড়া (সোনাপুর) গ্রামের মৃত আবারক মিয়ার ছেলে।

খুন হওয়া ব্যক্তির নাম ইন্তাজ মীর (৫২)। তিনি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ থানার কালেঙ্গা গ্রামের মৃত ইনু মীরের ছেলে।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত সুজন মিয়া জানান, ইন্তাজ মীরের অটোরিকসা চুরি করে অপরাধ ঢাকতে তাকে গলা টিপে হত্যা করেন সুজন।

গ্রেফতারের পর আসামির দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শ্রীমঙ্গল উপজেলার ৬নং আশিদ্রোন ইউনিয়নের সিন্দুরখান রোডস্থ রামনগর গ্রামের কাকিয়ার পুলের নিকটস্থ সবুজ মিয়ার গ্যারেজ থেকে ভিকটিমের ব্যবহৃত ব্যাটারি চালিত একটি অটোরিকশা উদ্ধার করা হয়। এছাড়া সুজনের দেহ তল্লাশি করে খুন হওয়ার ইন্তাজ মীরের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, অজ্ঞাতনামা লাশ হওয়ায় শ্রীমঙ্গল থানাপুলিশ হত্যা মামলা দায়েরের পর খুনের রহস্য উদঘাটনে কাজ শুরু করে। আমরা হোটেলের রেজিস্টার পর্যালোচনা, আমাদের সোর্স এবং তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় খুনের ঘটনায় জড়িত আসামিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই এবং ভিকটিমের অটোরিকশা ও মোবাইল উদ্ধার করি। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি