শ্রীমঙ্গলে কুকুরের কামড়ে শিশুসহ আহত ২২

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ৮ জুন ২০২৪, ৮:৪৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ সপ্তাহ আগে

শ্রীমঙ্গলে মৌলভীবাজার রোডসহ বিভিন্ন এলাকায় পাগলা কুকুরের কামড়ে ২২ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (৭ জুন) সকাল ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত উপজলার সাতগাও, জানাউড়া, লালবাগ, সবুজবাগ, মুসলিমবাগ, শাহিবাগ ও মিশন রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, পাগলা কুকুরের কামড়ে এ পর্যন্ত ২২ জন চিকিৎসা নিয়েছেন। গুরুতর ৩ জনকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং ১ জন সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নেওয়া আহতরা হলেন- গজানন্দ কৈরী, রাজেল রাউ, শ্রীকান্ত চন্দ্র, মো. জামান উল্লা, জিহান, রামরতি কাহার, মায়া বেগম, আসলাম খান, পুতুল, দিলীপ কুমার দেব, শ্যামল চক্রবর্তী, নিরেন্ধ সজন দেব, শিশির ভট্রাচায্য, জয়ন্তী, কেপায়েত উল্লা, আল আমিন, সন্দীপন

শীল, নাসিমা বেগম, রুহিত মিয়া, রায়হান মিয়াসহ আরও কয়েকজন। এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন পুতুল নামের একজন।

চিকিৎসা নেওয়া ব্যক্তিরা জানান, রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় হঠাৎ করে একটি পাগলা কুকুর শিশুসহ বয়স্কদের কামড় দিয়েছে।

কুকুরের কামড়ে আহত চন্দনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী রুহিত মিয়া জানায়, আমি সন্ধ্যার পর বাসা থেকে মৌলভীবাজার রোডের একটি দোকানে পেন্সিল কিনতে গিয়ে হঠাৎ কুকুরের সামনে পড়ি। কোনো কিছু ‍বুঝে ওঠার আগেই কুকুর দৌড়ে এসে আমার হাতে কামড় বসায়।

আহত রায়হান মিয়া বলেন, সন্ধ্যার দিকে আমি বাসার গেটের সামনে ছিলাম। হঠাৎ কুকুরটি এসে হাতে কামড় বসিয়ে দিয়েছে। পরে লাথি দিয়ে পা ছাড়াই। কুকুরটি লাথি খেয়ে পালিয়ে যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. শারমিন আক্তার জানান, শুক্রবার রাত ৯টা পর্যন্ত শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২২ জন কুকুরের কামড়ে আহত আমাদের এখানে চিকিৎসা নিয়েছেন।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা জানান, কুকুরের কামড়ে একদিনে রাত ৯টা পর্যন্ত ২২ জন রোগী এসেছেন। আমরা ভুক্তভোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছি।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি