বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিলো রাজিয়া

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২১, ৫:৩৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৬ দিন আগে

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে রাজিয়া ইসলাম নিছা। রোববার (২১ নভেম্বর) ভোরে নিছার বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। নিছা কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের পতনঊষার উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজের ছাত্রী।

জানা যায়, রোববার ভোরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নিছার বাবা পতনঊষার গ্রামের মিজানুর রহমান বাবু (৪৫) সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। বাবাহারা নিছা মানসিকভাবে ভেঙে পড়লেও স্বজন ও শিক্ষকদের উৎসাহে সে রোববার সকালে উপজেলার মুন্সীবাজার কালী প্রসাদ উচ্চবিদ্যালয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিয়েছে।

রোববার সকাল ১০টার আগে চোখ মুছতে মুছতে পরীক্ষাকেন্দ্রে যায় নিছা। সহপাঠী ও কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সহযোগিতায় ভূগোল পরীক্ষায় অংশ নেয় সে। পরীক্ষা শেষে সে বাড়িতে ফিরে বাবার মরদেহ দাফনে অংশ নেয়।

পতনঊষার উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ ফয়েজ আহমেদ জানান, নিছার বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা শুনে সকালে তার বাড়িতে গিয়ে তাকে সান্ত্বনা ও উৎসাহ দিয়েছি পরীক্ষা দেওয়ার জন্য।

কালীপ্রসাদ উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের পরীক্ষা সচিব ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সত্যেন্দ্র কুমার পাল জানান, নিছা সবার সঙ্গে স্বাভাবিকভাবেই পরীক্ষা দিয়েছে। আমরা তার সার্বক্ষণিক খেয়াল রেখেছি।

পরীক্ষা শেষে নিছা বলে, বাবা আমাকে অনেক ভালোবাসতেন। বাবা চাইতেন আমি যেন পড়ালেখা করে অনেক বড় হই। তাই এমন অবস্থায়ও আমি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছি।

 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ