সিলেটে ঈদের নামাজে করোনামুক্তি চেয়ে বিশেষ দোয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক;
  • প্রকাশিত: ১৪ মে ২০২১, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ১ মাস আগে

করোনাভাইরাসের কারণে সারাদেশের ন্যায় সিলেটেও পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ ঈদগাহের পরিবর্তে মসজিদে আদায় করেছেন মুসল্লিরা । ঈদুল ফিতরের দুই রাকাআত ওয়াজিব নামাজের মধ্য দিয়ে ধর্মীয়ভাবে শুরু হয়েছে পবিত্র এই দিবসটি উপযাপন।

তবে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী এবার উন্মুক্ত স্থানে বা ঈদগাহে ঈদুল ফিতরের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়নি। এরই ধারাবাহিকতায় আজ সিলেটেও শাহী ঈদগাহসহ নগর ও শহরতলির কোনো ঈদগাহেই অনুষ্ঠিত হয়নি ঈদের নামাজের জামাআত, অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রতি মসজিদে।

ঈদের জামাত শেষে মোনাজাতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্তির জন্য কান্নায় ভেঙে পড়েন মুসল্লিরা। পাশাপাশি দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা এবং সবধরনের বালা-মুসিবত থেকে দেশের সুরক্ষায় প্রার্থনা করা হয় মহান আল্লাহর কাছে।

জানা গেছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সিলেট শাহজালাল দরগাহ মাজার মসজিদ ও বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ১টি করে, হাজী কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদে ৩টি এবং বন্দরবাজারস্থ কালেক্টরেট মসজিদে ৪টি জামাআত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ সিলেটের শাহজালাল দরগাহ মাজার মসজিদে ঈদের নামাজের জামাআত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায়। এটিই এবছর সিলেটের সবচেয়ে বড় ঈদ জামাত।

অন্যদিকে, সিলেটের বন্দরবাজারস্থ হাজী কুতরত উল্লাহ জামে মসজিদে ঈদের নামাজের জামাআত ৩টি অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ৭টা, সাড়ে ৮টায় আর সাড়ে ৯টায় আরেকটি।

নগরের বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে সাড়ে ৮টায় ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়।
বন্দরবাজার এলাকার সিলেট কালেক্টরেট মসজিদে ৪টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা ও ১০টায় এই জামাতগুলো অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এছাড়া নগরের বিভিন্ন এলাকার মসজিদগুলোতে ঈদের নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা।

নামাজ শেষে সিলেটের প্রতি মসজিদেই করোনামুক্তির জন্য স্রষ্টার কাছে কান্নায় ভেঙে পড়েন মুসল্লিরা। এসময় মুসল্লিদের আহাজারিতে ভারি হয়ে উঠে চারপাশ। পাশাপাশি দেশ ও জাতির সর্বাঙ্গীন মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ