রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা হতে পারে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের বিরুদ্ধে

সিলেট ডায়রি ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ৭ এপ্রিল ২০২১, ১০:২২ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৭ দিন আগে

রাষ্ট্রবিরোধী, উসকানিমূলক এবং ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পাশাপাশি রাষ্ট্রের শীর্ষ ব্যক্তিদের নিয়ে কটাক্ষ করার অভিযোগে ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশের এলিট ফোর্স র‍্যাব। এসব অভিযোগে রফিকুলের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা হতে পারে বলে জানিয়েছে বাহিনীটি।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে নেত্রকোনা থেকে তাকে আটক করা হয়। এদিন সন্ধ্যায় র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গত ২৫ মার্চ মতিঝিল এলাকায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরবিরোধী মিছিল ও ভাঙচুরের সময় রফিকুলকে আটক করেছিল পুলিশ। তবে কয়েক ঘণ্টা পর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, ‘রফিকুল ইসলামকে রাষ্ট্রবিরোধী, উসকানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি এবং রাষ্ট্রের শীর্ষ ব্যক্তিদের নিয়ে কটাক্ষ করার অভিযোগে আটক করা হয়েছে। এবার তাকে ছেড়ে দেয়া হবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আটক রফিকুল ইসলামের নামে এর আগে কোথাও কোনো অভিযোগ কিংবা মামলা ছিলা কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রাষ্ট্রবিরোধী ও উসকানিমূলক বক্তব্যের অভিযোগে রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রবিরোধী (রাষ্ট্রদ্রোহী) মামলা হতে পারে। মামলার তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে তাকে ঢাকায় আনা হবে কি-না।’

রফিকুলের বিরুদ্ধে কোন থানায় মামলা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে এই র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, ‘মামলা প্রক্রিয়াধীন। কিছুক্ষণ পরে র‍্যাবের পক্ষ থেকে বিস্তারিত জানানো হবে।’

রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনা জেলার পশ্চিম বিলাশপুর সাওতুল হেরা মাদরাসার পরিচালক। তিনি ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন।

তিনি রাজধানীর জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা মাদরাসায় লেখাপড়া করেন। শারীরিক আকৃতিতে ছোট হওয়ায় তাকে সবাই ‘শিশুবক্তা’ বলেন এবং এ হিসেবেই পরিচিতি পান তিনি। নেত্রকোনা জেলার পশ্চিম বিলাশপুর সাওতুল হেরা মাদরাসার পরিচালক রফিকুল ইসলাম ২০ দলীয় জোটভুক্ত জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও রাবেতাতুল ওয়ায়েজিনের সঙ্গে যুক্ত আছেন বলেও জানা যায়।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ