অথঃ সাকিব সমাচার!

স্পোর্টস ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২১, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ৩ সপ্তাহ আগে

তার ফেসবুক লাইভে বলা কথা নিয়ে সারাদেশে তোলপাড়। জাতীয় দলের দুই সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান বোর্ড পরিচালক আকরাম খান এবং নাইমুর রহমান দুর্জয়ের সঙ্গে অঘোষিত লড়াইয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

সাকিব তার বোর্ডে দেয়া চিঠির ব্যাপারে আকরাম খানকে দুষেছেন। বলেছেন, ‘আকরাম ভাই আমার চিঠির ভুল ব্যাখ্যা করেছেন। বলেছেন, আমি নাকি টেস্ট খেলতে চাই না। আসলে তা নয়। আমি আইপিএল খেলার জন্য ছুটি চেয়েছি।’

এর পাশাপাশি ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম ও হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের প্রধান নাইমুর রহমান দুর্জয়ের দায়িত্বপালন নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন সাকিব। তাদের পারফরম্যান্স কোথায়? কি করতে পেরেছেন দায়িত্ব নিয়ে? এমন খোঁচাও ছিল ছিল সাকিবের কথায়।

সাকিবের ওই কথাগুলো স্বভাবতই ভালোভাবে নিতে পারেননি দুই পূর্বসূরী। বরং তাদের গায়ে জ্বালা ধরিয়ে দিয়েছে এমন সব অভিযোগ। তারাও বক্তব্য, পাল্টা বিবৃতি দিয়েছেন।

ক্রিকেট অপস চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেছেন, সাকিবের আইপিএল খেলার অনাপত্তিপত্র পুনরায় বিবেচনা করা হবে। আর নাইমুর রহমান দুর্জয়ের দাবি, এইচপি থেকে খেলোয়াড় বেরিয়ে আসছে। সাকিবের অভিযোগ সত্য নয়। সাকিব এমন কথা বলতে পারেন কি না সেই প্রশ্নও তুলেছেন তিনি।

এর মধ্যে গতকাল (সোমবার) গভীর রাতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরেছেন সাকিব। সাকিবের হঠাৎ দেশে ফেরা নিয়েও মিডিয়ায় ছিল নানা জল্পনা-কল্পনা। তাই মধ্যরাতে বিমানবন্দরে তার অপেক্ষায় ছিলেন অনেক গণমাধ্যমকর্মী। তবে সাকিব তাদের সাথে কোনোরকম কথা না বলেই বাসায় চলে গেছেন।

তারপরও আজ (মঙ্গলবার) সারাদিন রাজ্যের গুঞ্জন। কারো কারো ধারণা, দুই পূর্বসূরী আকরাম খান ও নাইমুর রহমান দুর্জয়ের বিপক্ষে সাকিবের অবস্থান নিয়ে যে অপ্রীতিকর পরিস্থিতির উদ্ভব ঘটেছে, তার একটা সুরাহা করতেই বুঝি হঠাৎ দেশে ফিরেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

আজ সন্ধ্যার পর থেকে ব্যাপক গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে, রাতেই সাকিব বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সাথে দেখা করবেন এবং উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলবেন। এ কারণেই সন্ধ্যার পর থেকে আজ রাত ১০টা অবধি বিসিবি সভাপতির গুলশানস্থ বাসায় মিডিয়াকর্মীদের ভিড় ছিল।

কিন্তু জানা গেছে, সাকিব সেখানে যাননি। আর বিসিবি প্রধানও সাকিবকে তার সঙ্গে কথা বলার জন্য ডাকেননি। বোর্ডের এক দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, সাকিবের ওই বক্তব্য নিয়ে সৃষ্ট পরিস্থিতিকে খুব একটা গুরুত্ব দিতে নারাজ নাজমুল হাসান পাপন। এরই মধ্যে এক দৈনিকের সাথে আলাপে বিসিবি সভাপতি তা জানিয়েছেনও।

তাই সূত্রের দাবি, আজকালের মধ্যে ঘটা করে বোর্ড সভাপতির সাথে সাকিবের সাথে সাক্ষাত এবং উদ্ভূত অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ে নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে আলাপ-আলোচনার সম্ভাবনা কম। কারণ বিসিবি প্রধান এখন পর্যন্ত বিষয়টাকে খুব বড় করে দেখছেন না।

তাই ধারণা করা হচ্ছে, বোর্ড প্রধান হয়তো গোপনেই বিষয়টি সমাধান করার পক্ষে। আপাতত তাই উত্তেজক পরিস্থিতির উদ্রেক ঘটার সম্ভাবনাও কম।

বরং সাকিব আইপিএল খেলতে যাওয়ার আগে খুব শিগগিরই অনুশীলন শুরু করতে পারেন। অন্য একটি সূত্র জানিয়েছে, আবারও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে বিকেএসপিতে স্বল্পকালীন ক্যাম্প করতে দেখা যেতে পারে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ