সিলেটের উন্নয়নের ব্যাপারে কোনো দল নেই : আরিফ

নিজস্ব প্রতিবেদক ;
  • প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০:৫৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ সপ্তাহ আগে

সিলেটের উন্নয়নের ব্যাপারে কোনো দল নেই বলে মন্তব্যে করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বলেছেন, আমি একটা দলে বিশ্বাস করি, একটা আদর্শে বিশ্বাস করি, লালন করি। এটা আমার ব্যক্তিগত ব্যাপার। কিন্তু সিলেট মহানগরীর উন্নয়নে আমি সবার সহযোগিতা চাই।

তিনি আরও বলেন, চলমান এই উন্নয়নে আমাকে সবাই সহযোগিতা করছেন। আর এই উন্নয়নকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে সকল মহলের সহযোগিতা থাকবে। আমার বিশ্বাস আমাদের এই উন্নয়ন কাজ শেষ হলে সিলেট শুধু বাংলাদেশের মধ্যে নয়, বিশ্বের বিভিন্ন সিটির মতো সিলেট নগরীর হবে।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টায় সিলেট নগরের চৌচাট্টাস্থ উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিদর্শনে এসে তিনি এই কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, সিলেটের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট ভিন্ন। সিলেটে সব সময় সবার মধ্য সম্প্রতি রয়েছে। সেটা ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক উভয় ক্ষেত্রেই। এজন্য আমরা গর্বিত। বাংলাদেশ স্বাধীনতার ৫০ বছরে পা রেখেছে। আর দেশের এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে সিলেট ব্যতিক্রম শহরে হবে সেটি সবাইকে দেখাতে চাই। সেই লক্ষ্যে আমরা শহরে উন্নয়ন কাজ করে যাচ্ছি।

গতকাল বুধবার সিলেটের চৌহাট্টায় অবৈধভাবে গড়ে তুলা মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডের জায়গায় উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের জন্য সেটি উচ্ছেদে এসে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের পরে সেখানে পার্কিং করা সকল গাড়ি রেকার করে স্থানটি খালি করে বিকেল থেকে উন্নয়ন কাজ শুরু হয়।

মেয়র আরিফ আরও বলেন, আমরা পুরো শহরটাকে নতুন করে নান্দনিক রূপে সাজাচ্ছি। পাশাপাশি গাড়ি চলাচলের ক্ষেত্রে আমরা ভিন্ন পরিকল্পনা নিচ্ছি। আম্বরখানা, মদিনা মার্কেট, নাইওরপুলসহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোকে নিয়ে পরিকল্পনা করছি।

এদিকে সিলেট নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় অবৈধ স্ট্যান্ড উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে পরিবহন শ্রমিক-সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার সময় গাড়ি ভাঙচুরের প্রতিবাদে আগামী সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) থেকে সিলেটে সকল ধরণের পরিবহণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন পরিবহণ শ্রমিকরা।

তবে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলছেন, সময়ের ব্যবধানে পরিবহণ শ্রমিকরাও বুঝবেন এটা করা ঠিক না।

এর আগে বুধবার দুপুরে সিলেট নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় অবৈধ মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড উচ্ছেদকালে পরিবহন শ্রমিক ও সিটি কর্পোরেশন কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পালটা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় অন্তত অর্ধশতাধিক যানবাহন ভাংচুরের ঘটনাও ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এসময় রণক্ষেত্রের পরিণত হয় আশপাশের এলাকা। আতঙ্কে দোকানপাট বন্ধ করে দেন ব্যবসায়ীরা।

এদিকে সিলেট নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় অবৈধ মাইক্রো স্ট্যান্ড উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে পরিবহন শ্রমিক-সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসব মামলায় মোট এজাহায়নামীয় আসামি হিসেবে ২৮ জনসহ অজ্ঞাত আরও ৩০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এর মধ্যে অস্ত্রসহ যুবক আটকের ঘটনায় একটি, দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের উপর হামলার ঘটনায় একটি এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মারধরের ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ৩ মামলার মধ্যে ১ টি মামলার বাদী সিসিকের উপ-সহকারী প্রকৌশলী দেবপদ রায় আর বাকি ২ টি মামলার বাদী পুলিশ।

 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ