দূর্নিতীবাজ যেই হোন ছাড় দেওয়া হবেনা : বিশ্বনাথে এমপি মোকাব্বির

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি ;
  • প্রকাশিত: ৩০ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:৩৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৫ মাস আগে

সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য মোকাব্বির খান বলেছেন, দেশের জনগণ হলেন মালিকপক্ষ আর নির্বাচিত প্রতিনিধিরা হলেন জনগণের সেবক। উঁচু মঞ্চ বা গেইট নির্মাণ করে মালিক-সেবকের দূরত্ব সৃষ্টি করবেন না। একজন সেবক হিসেবে জনগণ তথা রাষ্ট্রের মালিকদের জন্যে আমি আমার কাজ করে যাচ্ছি, ইতিহাসে নাম লিখাতে বা আবার নির্বাচিত হতে নয়। বুধবার বিকেলে সিলেটের বিশ^নাথ উপজেলার রজকপুর ঈদগাঁ মাঠে রজকপুর গ্রাম ও এলাকাবাসীর আয়োজনে রজকপুর খেয়াঘাটের বাসিয়া নদীর উপর ব্রীজ নির্মাণ ও উন্নয়নের লক্ষ্যে আলোচনা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি আরোও বলেন, অসৎ আমলা এবং দূর্নিতীবাজ ব্যবসায়ীদের নিয়ন্ত্রন করতে না পারলে যতই ভাল কাজ করুন তাতে কোন লাভ হবেনা আপনার সকল কাজ ভেসে যাবে। ইদানিং একটি দুর্নীতিবাজ চক্র কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিতে অপতৎপরতা চালাচ্ছে জানিয়ে সাংসদ মোকাব্বির খান বলেন, এইসব দুর্নীতিবাজরা যেই হোক যতই বড় হোক, এসব চোরদেরকে আপনাদের সহায়তা নিয়ে সায়েস্তা করতে চাই। একটি কথা স্পষ্ট করে বলতে চাই আপনার মালিক পক্ষ আমাকে সেবক হিসেবে মনোনিত করেছেন। যদি আমার বিরুদ্ধে কোন দুর্নিতীর প্রমাণ পাণ সাথে পদত্যাগ করব। এদেশে দুর্নিতীবাজ যেই হোক না কেন, এদেরকে কোন ছাড় দেওয়া হবেনা। জীবন দিয়ে হলেও সকল দুর্নিতী প্রতিহত করা হবে। হয় মৃত্যু, নয় দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করে বাঁচতে চাই।

সভায় প্রধান অতিথি মোকাব্বির খান এক সপ্তাহের মধ্যে রজকপুর খেয়াঘাটে বাসিয়া নদীর উপর পাকাসেতু নির্মাণের জন্যে ড্রয়িং করার জন্যে উপজেলা প্রকৌশলীকে নির্দেশনা প্রদান করেন।

আলোচনা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে গ্রামের প্রবীন ব্যক্তিত্ব মাওলানা আব্দুল হকের সভাপতিত্বে উপজেলা ক্রিকেট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক একেএম তুহেমের পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছয়ফুল হক, স্থানীয় ইউপি সদস্য শামীম আহমদ, সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম জুবায়ের, নতুন সিরাজপুর গ্রামের মুরব্বি কবির আহমদ, বশারত আলী, মাদ্রাসা শিক্ষক মাওলানা সিরাজুল ইসলাম। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রজকপুর গ্রামের যুবক ও সদর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক মনোহর হোসেন মুন্না, শাহজিরগাঁও গ্রামের যুবক ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের রফিক আলী, সিরাজপুর গ্রামের যুবক আতিকুর রহমান। পরে এলাকাবাসীর পক্ষে সাংসদ মোকাব্বির খানকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

এসময় এমপি মোকাব্বির খানের পিএস কয়েছ মিয়া, এপিএস অসিত রঞ্জন দেব, টুকেরকান্দি গ্রামের প্রবীন মুরব্বি আব্দুল মন্নান, আব্দুল খালিক, পুরান সিরাজপুরের মুরব্বি আনোয়ার আলী, যুবক আব্দুর রহমান, জুয়েল আহমদসহ এলাকার দেড় শতাদিক জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ