সিলেটে তেল-গ্যাস পাম্পে রোববার থেকে ডাকা ধর্মঘট প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক ;
  • প্রকাশিত: ২৬ ডিসেম্বর ২০২০, ৩:২৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৪ মাস আগে

৬ দফা দাবিতে আগামীকাল রোববার থেকে সিলেটের তেল ও গ্যাস পাম্পগুলোতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছিল। শনিবার সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে এক সভা থেকে ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেন তেল-গ্যাস পাম্প মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ। সভায় সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খানসহ তেল ও গ্যাস পাম্প মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সিলেট বিভাগের তেলের পাম্পগুলোতে নিম্নমানের তেল সরবরাহ করায় অনির্দিষ্ট কালের ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটার্স এজেন্টস এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশন। আগামীকাল রবিবার সকাল থেকে ৬ দফা দাবিতে এই ধর্মঘট শুরু হওয়ার কথা ছিল।

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটার্স এজেন্টস এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশনে দাবিসমূহের মধ্যে রয়েছে, জ্বালানি তেল বিপনন কোম্পানি কর্তৃক নিম্নমানের পেট্রোল সরবরাহ বন্ধ করতে হবে এবং পূর্বের ন্যায় সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উন্নত মানের পেট্রোল সরবরাহ করতে হবে। জ্বালানি তেলের মান নিয়ন্ত্রণের জন্য সিলেটের প্রত্যেক ডিপোতে জ্বালানি তেল টেস্টিংল্যাব স্থাপন করতে হবে। বিভিন্ন সরকারি সংস্থা কর্তৃক অন্যায় ও উদ্দেশ্যমূলক হয়রানী আচরণ বন্ধ করতে হবে। সরকারি অধিদপ্তর কর্তৃক পেট্রোল পাম্পে অভিযান পরিচালনাকালে এসোসিয়েশনের প্রতিনিধি ও তেল বিপনন কোম্পানির প্রতিনিধির উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে। সরকারি অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত লাইসেন্স সমূহ নবায়ন সহজ করতে হবে। দুর্বৃত্ত পরায়ন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম মাসুদকে অবিলম্বে সিলেট থেকে প্রত্যাহার করতে হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটার্স এজেন্টস এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগের সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমদ চৌধুরী। তিনি বলেন, আমরা সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উৎপাদিত তেল বিক্রি করে আসছিলাম দীর্ঘদিন থেকে। কিন্তু কয়েকমাস থেকে সিলেটের পাম্পগুলোতে গ্যাস ফিল্ডের তেল না দিয়ে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের তেল দেয়া হচ্ছে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের তেল খুবই নিম্নমানের ও ভেজাল। যার কারণেই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে আমাদের পাম্পগুলোতে জরিমানা করেছে। আমাদের দাবি মেনে না নেয়া হলে রোববার থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য সিলেট বিভাগের সকল পেট্রোল পাম্প ও গ্যাস পাম্প বন্ধ থাকবে।

 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ