স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজিত হবে দূর্গা পূজার আয়োজন

সিলেট ডায়রি ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১:৩৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ বছর আগে

এবারের শারদীয় দুর্গোৎসব উৎসব মুখর হবে না। সর্বাবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হবে সনাতন সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা।

১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১১টায় চৌহাট্টাস্থ শ্রী শ্রী ভোলাগিরী আশ্রমে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার বার্ষিক প্রতিনিধি সভায় উপরোক্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ সিলেট জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা গোপিকা শ্যাম পুরকায়স্থের সভাপতিত্বে ও মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্তের পরিচালনায় প্রতিনিধি সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রঞ্জন ঘোষ। সভায় প্রতিটি উপজেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকগণ ও মহানগর শাখার সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় শোক প্রস্তাব পাঠ ও বাৎসরিক হিসাব প্রতিবেদন উপস্থাপন হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, বৈশিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারনে বিশ্বব্যাপী যে দূর্যোগময় পরিস্থিতি বিরাজ করছে তা বাংলাদেশেও বিস্তার লাভ করেছে। এমন অবস্থায় এবারের শারদীয় দূর্গোৎসব আয়োজন কোনভাবে উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে না। পূজার ধর্মীয় আচার-আচরণ সমস্ত কিছু পালিত হবে সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে। সভায় কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের প্রস্তাবনার আলোকে জেলা ও মহানগর নেতৃবৃন্দ ৩৮টি প্রস্তাবনা গ্রহণ করেন।

সে ক্ষেত্রে প্রতিটি পূজা মন্ডপে স্বাস্থ্যবিধি মানার উপর সর্বোচ্চ গুরত্ব দিয়ে দূর্গাপূজার বর্ণিল আয়োজন না করে আনুষাঙ্গিক সকল নিয়ম মেনে পূজা করার সিদ্ধান্ত নেন। পুরোহিত, ভক্ত ও দর্শনার্থী সকলকে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরিধান এবং ৩ ফুট শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে অনুরোধ জানানো হয়। ঢাক-ঢোল, কাসা ও বাধ্যযন্ত্র ছাড়া কোন রকম সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহার না করার সিদ্ধান্ত হয়।

এবারের পূজায় দলভেদে প্রসাদ বিতরণ করা যাবে না এবং অঞ্জলি গ্রহণ করা যাবে না। তবে স্বল্পসংখ্যক ভক্তকে নিয়ে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে একাধিকবার অঞ্জলি প্রদান করা যাবে। পূজায় আরতি প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে এবং সন্ধ্যা আরতির পর দর্শনার্থী ও ভক্তদের পূজা মন্ডপে আগমন নিরোৎসাহিত করার সিদ্ধান্ত হয়। সভায় প্রতিমা বিসর্জন অনুষ্ঠানে কোন শোভাযাত্রা করা যাবে না। নারী-শিশু ও বয়স্ক ব্যক্তিদের বিসর্জনস্থলে উপস্থিত করা যাবে না বলে সিদ্ধান্ত হয়।

সভায় ১২ সদস্য বিশিষ্ট মনিটরিং কমিটি গঠন করা হয় এবং যেকোন প্রয়োজনে সকলকে মনিটরিং কমিটির সাথে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। সভায় দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে সরকারের নির্দেশনা ও কেন্দ্রীয় পূজা পরিষদের নীতিমালা মেনে সকল পূজা কমিটিকে পূজা উদযাপনের অনুরোধ করা হয়। বক্তারা এবারের পূজা আয়োজনে জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় প্রশাসন, রাজনীতিবিদ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি সহ সর্বস্তরের মানুষের সহযাগিতা কামনা করেন।

সভায় বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট মৃত্যুঞ্জয় ধর ভোলা, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের জেলা সভাপতি এডভোকেট প্রদীপ কুমার ভট্টাচার্য্য, পূজা পরিষদের মহানগর শাখার সভাপতি সুব্রত দেব, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপক রজত কান্তি ভট্টাচার্য্য, জেলা সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবল পাল, সহ সভাপতি অধ্যক্ষ ভাস্কর রঞ্জন দাস, রাজনীতিবিদ ও মহানগর পূজা পরিষদের সিনিয়র সদস্য তপন মিত্র, মহানগর শাখার যুগ্ম সম্পাদক চন্দন দাস, জেলা কমিটির দপ্তর সম্পাদক মানিক লাল দে, জেলা কমিটির আইন সম্পাদক এড. বিপ্রদাস ভট্টাচার্য্য, মহানগর ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক জিডি রুমু, সদর উপজেলার সভাপতি নিলেন্দু ভোষণ দেব অনুপ, বিশ্বনাথ উপজেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুনীল দেব, বালাগঞ্জ উপজেলার সভাপতি রজত দাস ভূলন, কানাইঘাট উপজেলার সভাপতি চিত্রশিল্পী ভানু লাল দাস, বিয়ানীবাজার উপজেলার যুগ্ম সম্পাদক বিপ্লব চক্রবর্তী, জৈন্তাপুর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক দুলাল দেব, জকিগঞ্জ উপজেলার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সুজন দেব, ওসমানীনগর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ডি কে জয়ন্ত, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চন্দ্র বিশ্বাস, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার সাধারণ সম্পাদক বিজন দেবনাথ, বাগানভেলীর সভাপতি ও সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক রাজু গোয়ালা, গোয়াইনঘাট উপজেলার সদস্য সচিব সুলাল দেব প্রমুখ।

এছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় সহযোগী সম্পাদক মলয় পুরকায়স্থ, জেলা কমিটির যুগ্ম সম্পাদক অরুন দেবনাথ সাগর, মহানগর পূজা পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক এড. দেবব্রত চৌধুরী লিটন, মনোজ কান্তি দত্ত মুন্না, ছাত্র ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি রকি দেব, ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদের জেলা সভাপতি ধনঞ্জয় দাস ধনু প্রমুখ।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ