জকিগঞ্জে গলায় ফাঁস দিয়ে এক শিশুর আত্মহত্যা

জকিগঞ্জ প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:১৫ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ১০ মাস আগে

জকিগঞ্জের ৯নং মানিকপুর ইউনিয়নাধীন ৯নং ওয়ার্ড কলাকুটা গ্রামে ৭বছরের এক শিশু গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেছে।

মেয়েটির নাম মাশরাফিয়া জান্নাত তাছমিয়া(৭) সে কলাকুটা গ্রামের আং মালেকের মেয়ে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায় মৃত্য শিশুর পিতা ভারতে থাকেন এবং তার মা তিনির অসুস্থ বোনকে দেখতে যান। শিশুটির কলেজে পড়ুয়া বড় বোন ও চাচা বাড়ীতে ছিল।

৩ সেপ্টেম্বর রাত প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার শেষে শিশুটির মা আত্নীয়ের বাড়িতে থাকায় সে তার চাচার কাছে তার রুমে ঘুমিয়েছিলো।ভোর ৫.৩০ঘটিকায় চাচা সিএনজি চালক গাড়ি নিয়ে গ্যাস আনতে শিশুটিকে তার রুমে ঘুমে রেখে চলে যায়।

সকাল ৮ টায় শিশুটির বড় বোন তাকে নিয়ে নাস্তা করে আবার ঘুমিয়ে পড়ে। সকাল ১০ টায় শিশুটিকে চাচার রুমের পাশের রুমে জানালার রডের সাথে ঝুলানো অবস্থায় পার্শ্ববর্তী রাস্তাও বাড়ির লোকজন দেখতে পায়।

তখন তাদেরকে ডাকাডাকি করলে শিশুটির বড় বোন এসে শিশুটি জানালার রডের সাথে গামছা দিয়ে ঝুলানো দেখে তার মাকে ফোন দিয়ে জানায়।

স্থানীয় লোকজনও চেয়ারম্যান থানাকে অবগত করলে ঘটনাস্থলে এসে পুলিশ পরিদর্শন করে।

জকিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব সুদীপ্ত রায় বলেন, শিশুটিকে ফাঁস লাগানো অবস্থায় পাওয়া গেছে। ছোট মেয়ে কি কারণে সে আত্নহত্যা করেছে সেটা পরিস্কার নয়, মনে হচ্ছে রহস্যজনক।

সঠিক তদন্তের জন্য তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জকিগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর মোঃ আব্দুন নাসের বলেন, যেহেতু ছোট মেয়ে সেখানে আমাদের সন্দেহ থেকেই যায় । তাই সঠিক তদন্তের জন্য লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠাবো।

তবে স্থানীয় লোকজনের মতে ছোট্ট অবুজ শিশুটি কেন আত্মহত্যার পথ বেছে নিলো তার সঠিক অনুসন্ধান প্রয়োজন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ