কোম্পানীগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২০টি পরিবারকে টিউবওয়েল দিল আরএফএল

সিলেট ডায়রি ডেস্ক ;
  • প্রকাশিত: ৩০ আগস্ট ২০২০, ২:১৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ বছর আগে

দেশের অন্যতম শীর্ষ শিল্প প্রতিষ্ঠান আরএফএল-এর উদ্যোগে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২০টি পরিবারের মধ্যে ২০টি টিউবওয়েল বিতরণ করা হয়েছে। এর সাথে টিউবওয়েল প্রতিস্থাপনের জন্য সকল আনুষাঙ্গিক জিনিসপত্রও দেওয়া হয়েছে।

রোববার বিকেল সাড়ে তিনটায় বানভাসি মানুষের পাশে বিশুদ্ধ পানির সমাধান নিয়ে আরএফএল শীর্ষক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ২০ টি প্রতিবন্ধি, মৎস্যজীবী এবং অসহায় পরিবারের মধ্যে টিউবওয়েল বিতরণ করা হয়।

পাশে আছি বাংলাদেশ স্লোগানে কোম্পানীগঞ্জ থানা সদর মডেল উচ্চবিদ্যালয় মাঠে টিউবওয়েল বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আরএফএল-এর জেনারেল ম্যানেজার (সেলস) মোহাম্মদ আব্দুল কুদ্দুস মিয়া।
জোনাল ম্যানেজার জয়নাল আবেদীনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ১ নং ইসলামপুর পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য শাহ মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, ২নং ইসলামপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ বাবুল মিয়া। আরএফএল-এর ডিভিশনাল ম্যানেজার স্বপন কুমার সরকার, এজিএম শরীফুল বিপ্লব, ইসলামপুর পশ্চিম ইউনিয়নের সচিব নাছির উদ্দিন, ইউপি সদস্য বিলাল মিয়া, ইউনিয়নের হিসাব রক্ষক অমিজিৎ দে রিপন, ইউপি উদ্যোক্তা সুহেল আহমদ।

টিউবওয়েল বিতরণ অনুষ্ঠানে শাহ মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন চেয়ারম্যান শোকের মাস আগস্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বলেন,
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় দরিদ্রদের টিউবওয়েল প্রদান করে আরএফএল কোম্পানি মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করল। আরএফএল কর্তৃপক্ষ প্রমাণ করেছেন ইচ্ছা থাকলে ব্যবসা করার পাশাপাশি মানুষের সেবাও করা যায়। আরএফএল কোম্পানির মতো অন্যদেরও মানবিক কার্যক্রম নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার অসহায়দের মধ্যে টিউবওয়েল বিতরণ করায় তিনি আরএফএল কোম্পানির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এ উপজেলায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শিল্প কারখানা স্থাপনের আহবান জানান।

টিউবওয়েল পেয়ে উপজেলার নবাগি গ্রামের শারিরীক প্রতিবন্ধি সাইদুর রহমান আরএফএল এর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, অনেক দিন ধরে বিশুদ্ধ পানির অভাবে রয়েছি। বাড়িতে টিউবওয়েল না থাকায় অনেক কষ্ট করে বিশুদ্ধ পানি সংগ্রহ করতে হতো। এখন টিউবওয়েল পাওয়ায় এই সঙ্কট নিরসন হলো। আল্লাহ আরএফএল-এর মালিকের ভালো করুক।

একই উপজেলার লাছুখাল গ্রামের অসহায় নারী রোকেয়া বেগম আরএফএল -এর টিউবওয়েল পেয়ে খুবই খুশি। আবেগতারিত কণ্ঠে তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বাড়িতে টিউবওয়েল না থাকায় বিশুদ্ধ পানি খাওয়া দুঃসাধ্য ছিলো। আজ টিউবওয়েল পেয়ে ঈদের দিনের চেয়ে বেশি খুশি আমি। পানির জন্য আমাদের আর চিন্তা করতে হবে না বলে যোগ করেন তিনি।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ