প্রেম প্রত্যাখ্যান: কিশোরীকে কুপিয়ে আহতের আসামি গ্রেপ্তার

সিলেট ডায়রি ডেস্ক ;
  • প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০২০, ৭:৪৯ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ১ বছর আগে

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এক কিশোরীকে কুপিয়ে আহতের ঘটনায় মূল আসামি সজিবকে(২০) গ্রেপ্তার করেছে মাদারীপুর র‌্যাব -৮।

মঙ্গলবার রাতে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার স্বরমঙ্গল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সজিব রাজৈর উপজেলার হৃদয়নন্দী গ্রামের হোসেন শেখের ছেলে।

র‌্যাব জানায়, আসামি ভুক্তভোগী কিশোরীকে গত তিন বছর ধরে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন।

এ নিয়ে গ্রামের মাতব্বর পর্যায়ে দুই-তিন বার শালিস বসানো হলেও আসামি ভুক্তভোগী কিশোরীর পিছু ছাড়েননি বরং তাকে স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো এবং প্রেমের প্রস্তাবসহ নানা ধরনের কুপ্রস্তাব দিতো।

এসব প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তিনি ভিকটিমের প্রতি ক্ষিপ্ত হয়। সোমবার রাতে রাত নয়টায় ভুক্তভোগী কিশোরী তার পালিত খরগোশকে খাবার দিতে ঘর থেকে বের হন।

এ সময় তাকে একা পেয়ে কু-প্রস্তাব দেন সজীব শেখ। এই প্রস্তাবে রাজি না হলে সজীব কিশোরীকে চড়-থাপ্পড় ও কিল-ঘুষি মারে এবং একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করেন।

এ সময় কিশোরীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে অভিযুক্ত সজীব শেখ পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কিশোরীর মা বাদী হয়ে রাজৈর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এরপর র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩ মাদারীপুর ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল সহকারী পরিচালক মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে স্বরমঙ্গল গ্রাম থেকে সজিবকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মাদারীপুর র‌্যাব -৮ কোম্পানি কমান্ডার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. তাজুল ইসলাম জানান, ক্যাম্পের এই ঘটনা র‌্যাবের দৃষ্টিগোচর হলে র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি আতিকা ইসলাম, বিপিএম এর নির্দেশে সহকারী পরিচালক মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে আভিযানিক দল তড়িৎ অপারেশন পরিচালনা করেন এবং ২৪ ঘণ্টার আগেই অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। আটক আসামিকে মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ