পানি বন্দী উপশহর নিয়েকিছু কথা

এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন;
  • প্রকাশিত: ২১ জুলাই ২০২০, ৪:০৮ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৭ মাস আগে

ফেসবুকে চমৎকার-চমৎকার মন্তব্যকারী সম্মানিত জ্ঞানী গুনি ভাই বন্ধুগন আপনাদের সদয় অবগতি ও স্মরনে রাখার তাগিদে লিখছি, উপশহর হাউজিং এর ভিটা লেভেল সুরমা নদীর তীর লেভেলের অনেক নীচে অবস্থিত তাই সুরমা নদী ভরে গেলে উপশহরের পানি যথানিয়মে নিষ্কাসিত হয় না, তাই বৃষ্টির পানি জমে থাকে ।

বর্তমানে সুরমার পানি শহরের অনেক জায়গায় তীর ছুয়ে ছুয়ে প্রবাহিত হচ্ছে । সেজন্য উপশহরের বৃষ্টির পানি দ্রুত নিষ্কাসিত না হয়ে জমে থাকে, অনেক রাস্তায় পানি জমে থাকায় সাময়িক অসুবিধার কারন। আমরা অনেকেই কয়েক দিন পরপর না বুঝে কিংবা
বাহবা পাওয়ার জন্য পাজি টিভি, মাঝি টিভি তে লাইভ সংবাদ প্রচার করছি কিংবা লিখা লিখি করি/ করছি বা কেউ কেউ মন্তব্য করে ঘোলাপানিতে মাছ শিকার করার চেষ্টা করছি। বাস্তবতা হচ্ছে ভিটা লেভেল যদি নদীর তীর লেভেলের চেয়ে নিছু হয় তাহলে বর্ষাকালে পানিতো জমবেই এতে দায় কার? কে নেবে এই দায় ।

উপশহর একটি পরিকল্পিত আবাসিক এরিয়া সরকারের যে বা যারা এই আবাসিক এলাকা সৃষ্টিকালিন সময়ে পরিকল্পনায় সম্পৃক্ত ছিলেন তারা না জনপ্রতিনিধি গন? সিটি কর্পোরেশন ছাড়া ও উপশহরের আলাদা একটি কর্তৃপক্ষ আছে, আমরা কিছু না বুঝে স্থানীয় কাউন্সিলর কিংবা জনপ্রতিনিধির দিকে আঙুল তুলি যা নিতান্ত অজ্ঞতা ছাড়া আর কিছু নয়। কাউন্সিলর চাইলেই তো মাটি দিয়া উপশহর কে পাহাড় বানাতে পারবেন না কিংবা পানির পাম্প দিয়া পানি শুকাতে ও পারবেন না। গৃহায়ন কতৃপক্ষের ভুলের মাসুল আজ উপশহরবাসী দিচ্ছেন।তাছাড়া অনেকে ময়লা যত্রতত্র ফেলে রাখে,তাই আসুন সবাই নিজ নিজ অবস্থান থেকে ড্রেইন পরিষ্কার রাখি,সুন্দর উপশহর বিনির্মানে সহযোগীতা করি।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ