লাবণী আক্তার’র কবিতা ”বৃদ্ধাশ্রম”

লাবণী আক্তার ;
  • প্রকাশিত: ১৬ জুলাই ২০২০, ৬:২০ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৮ মাস আগে

বৃদ্ধাশ্রম

 

মাঝরাতে ভেসে আসা আর্তনাদ আমি,
খোকা , আমাকে মারিস না আমি চুরি করিনি
ফেসবুক স্ট্যাটাসে স্নেহের মা আমি, কতই না পোস্ট আমাকে নিয়ে
আমি বলে সাত রাজার ধন ।
সংসারে আজ প্রয়োজন ফুরিয়েছে, আমি নিতান্তই এক মাকালফল
কোন কাজেই হয়তো লাগিনা।
সিঁড়ির কোনাটা আমার প্রাসাদ দুবেলা দুমুঠো ভাত পেতাম
তবুও ভালো ছিল দিনগুলো, দিনশেষে খোকাকে দেখতে পেতাম । আর রইল পড়ে মা ডাকটা শোনার,
সেটাও বহুদিন পর শুনতাম।
সেই রাতের কথা,
দিনটা ছিল রোববার
বাসায় ছিল জন্মদিনের অনুষ্ঠান,
আর আমি নামক মাকালফলটা কোন এক ঘরে,
সময় গুনছি কখন দুমুঠো ভাত পাবো।
হ্যাঁ আমি চোর ,আমি চোর ,
দু’মুঠো ভাতের চোর ,
খিদের জ্বালা যে সইতে পারিনা।
রাত পোহালো মাকালফলটা আজ বৃদ্ধাশ্রমে
হাবলু চাচা ও জনম দুঃখী
কি না করছে সংসারে ।
রহিমা আমেনার মত হাজারো মায়ের প্রাসাদ এখন এই বৃদ্ধাশ্রম ।
চেয়ে আছি আশ্রমের পথটাটার দিকে এই বুঝি খোকা এলো
মা ,মা বলে ডাকলো ।
শান্ত বিকেলটা আমায় কথা শোনাই কিগো খোকার মা,আজ ও বুঝি খোকা এলো না
ধুরছাই ,খোকা আমার বড্ড ছেলেমানুষ
চোর পুলিশ খেলার খুব শখ। একদিন শেষ বিকেলে
হঠাৎ গাড়ির হর্ন বাজলো
দৌড়ে গেলাম এই বুঝি খোকা এল না ,এটা নিছক স্বপ্ন ঐদিন আমার মত আরেকটা মাকাল ফলের প্রাসাদ হল আশ্রম।।

 

লাবনী আক্তার, শিক্ষার্থী, সরকারি পাইওনিয়ার মহিলা কলেজ, খুলনা।

 


প্রিয় পাঠক, আপনিও সিলেটডায়রি’র অংশ হয়ে উঠুন। স্বাস্থ্য, শিল্প ,সাহিত্য, ক্যারিয়ার, পরামর্শ সহ যেকোন বিষয় নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।


 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ