আয়েশা মুন্নির কবিতা ‘ডিসেম্বর শাহনামা’

আয়েশা মুন্নি;
  • প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০২২, ৯:৪৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: ২ মাস আগে

ডিসেম্বর শাহনামা

ডিসেম্বর তুমি এলেই রক্তে নব আন্দোলন উদ্বেলিত হয়,
নব জীবন যৌবনে যুগপৎ মনে ভর করে
লক্ষ শহীদের শোকগাথা।
আমার ভেতরে এক নব সমৃদ্ধ সময়
আমিত্বের মহা উত্থান হয়।
এখানে জীবন বিষ্ময় বিহ্বলতায় আপ্লুত
পরমানন্দ আনন্দ মুখর নয়।
ঝংকৃত বাদন বাজে অনুভবের সমগ্রতায়
আশাবাদী চেতনার অবিনশ্বর সুরভিত সুর
রক্তের ভেতরে আলোড়িত বোলে সুর তোলে
আর পরিশোধিত আমিত্বের শব্দপ্রভ
চিরঞ্জীবিতার সুস্বর চিন্ময়।

ডিসেম্বর এলেই একাত্তরে ফিরি
ডিসেম্বর এলেই বাস্তুচ্যূত আমাদের মুখচ্ছবি
ডিসেম্বর এলেই ভুলুণ্ঠিত অগ্নিদগ্ধ আবাস দেখি।
ডিসেম্বর এলেই শহীদ পরিবার স্মৃতিকাতর
দেশপ্রেমি জনক-জননীর ক্রন্দন।
ডিসেম্বর এলেই যুদ্ধরত অগ্রজের
অকুতোভয় শাহনামা খুলে বসি।
ডিসেম্বর এলেই স্বজনের আত্মদান চোখে ভাসে,
আমার ভেতরে চেতনার রথে
অকুতোভয়ে দৃঢ়চিত্ত স্পন্দন জাগে।
ডিসেম্বর এলেই নব স্বদেশে অদম্য সুরগান।
ডিসেম্বর এলেই জনক জননীর চোখে
দৃশ্যত অশ্রুর স্পষ্ট অগ্নিরেখা।

প্রতিরোধের পর বিজয়ের অগ্নি মশাল
দৃপ্তিতে স্নাত হয়ে ওঠা অসম্পাদিত স্বদেশের
নির্মাণযজ্ঞে অংশীদারিত্বের সচেতনতা।
ডিসেম্বর এলেই আত্মবিশ্লেষণ আর আত্মব্যবচ্ছেদের মুখোমুখি হওয়া।
নিজের আয়নায় প্রতিফলিত হতে দেখা
আপন ব্যর্থতার মুখচ্ছবি,
ডিসেম্বর এলেই শহীদের অসমাপ্ত স্বপ্ন পূরণের দায়ভার।
পুত্রশোকে প্রয়াত জনক জননীর ক্রন্দন আহাজারির ভূবন বিস্তার…
ডিসেম্বর এলেই নিজেকে প্রতীয়মান হতে থাকে
পরাভূত এক সৈনিক।

এসেছে ডিসেম্বর
নবপ্রত্যয়ে জেগে উঠি
ক্রান্তিলগ্নে বিদায়ের আগে ফুল হয়ে
আবার একবার ফুটে উঠি।

প্রিয় পাঠক, আপনিও সিলেটডায়রি’র অংশ হয়ে উঠুন। স্বাস্থ্য, শিল্প ,সাহিত্য, ক্যারিয়ার, পরামর্শ সহ যেকোন বিষয় নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি